1. tasermahmud@gmail.com : admi2017 :
  2. akazadjm@gmail.com : Taser Khan : Taser Khan
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৫:৩৫ অপরাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর ছবি দিয়ে দেশের মানচিত্র

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০ সহস্রাধিক ছবি দিয়ে বাংলাদেশের মানচিত্র তৈরি করেছেন বগুড়ার তরুণ চিত্রশিল্পী তারিকুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এক বছরের প্রচেষ্টায় তিনি এ ছবিগুলো এঁকেছেন। যেখানে প্রতিটি ছবির দৈর্ঘ্য ২ দশমিক ৫ সেমি. এবং প্রস্থ ২ সেমি.। গিনেজ বুকে স্থান পেতে ওই ছবিটির জন্য তিনি আবেদন করেছেন। প্রাথমিকভাবে তার ছবিটি নির্বাচিত হলেও এখন চূড়ান্ত স্বীকৃতির অপেক্ষায় রয়েছেন। বগুড়ার সাতমাথার মুজিব মঞ্চে গত ১২ ফেব্রুয়ারি মানচিত্রসহ তার শিল্পকর্ম নিয়ে একটি একক চিত্রপ্রদর্শনী করেন তিনি। সেই প্রদর্শনীতে তার শিল্পকর্ম দেখে সবাই বেশ অবাকও হয়েছেন। শুধু কী তাই? মাত্র

তিন মাসের প্রচেষ্টায় ৬ মাস আগে এক ইঞ্চি বাই দেড় ইঞ্চি আকৃতির ৪১০ পৃষ্ঠার ক্ষুদ্রাকৃতির কাগজের একটি বইও তৈরি করেছেন। যেখানে উঠে এসেছে ১৯২০ থেকে ১৯৭৫ পর্যন্ত নানাভাবে বঙ্গবন্ধুর কর্মজীবন। প্রতিটি প্রতিকৃতির আকার ২ মিলি মিটার। তুলি আঁচড়ে, রঙ কলমের কারুকাজে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ফুটে তোলেন তিনি। বইটিতে বঙ্গবন্ধুর শৈশব, কৈশোর, তারুণ্য ও রাজনৈতিক জীবনের ২৫০টি দুর্লভ চিত্রকর্ম স্থান পেয়েছে। এর মধ্যে পেনসিল স্কেচে আঁকা চিত্রকর্ম আছে ৩১টি, এ ছাড়া ২২৯টি আছে জলরঙে আঁকা ছবি। আছে পেনসিল স্কেচে আঁকা জাতীয় চার নেতা, সাতজন বীরশ্রেষ্ঠ, বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ, বঙ্গবন্ধুর কারাবন্দি জীবন, মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয় উল্ল­াস, বঙ্গবন্ধুর চোখে বাংলাদেশ এবং ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নির্মম হত্যাযজ্ঞের শোকচিত্র। চিত্রকর্মের সঙ্গে পেনসিলে লেখা আছে ১৯২০ থেকে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের শোকগাথার কথা।

বগুড়া আর্ট কলেজের সাবেক এই শিক্ষার্থী বর্তমানে মাটিডালি উচ্চবিদ্যালয়ে (চারু ও কারুকলা) খ-কালীন সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। পাশাপাশি আজিজুল হক কলেজে হিসাববিজ্ঞানে অধ্যয়নরত। শহরের ঠনঠনিয়া এলাকার ছাত্রাবাসের একটি কক্ষে তার বাস। ছাত্রাবাসের কক্ষ না বলে ‘বঙ্গবন্ধু আর্ট গ্যালারি’ বলাই ভালো। ঘরের চারপাশে শোভা পাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর নানা প্রতিকৃতি। কোনোটা জলরঙ, কোনোটা পেনসিল আবার কোনোটা কলমের স্কেচ।

তারিকুল বলেন, চিত্রকর্মে হাতেখড়ি বড় ভাই তাজমিলুর রহমানের কাছে। বগুড়া গাবতলীর বাগবাড়িতে ‘তাজ আর্ট’ নামের ভাইয়ের একটি দোকান আছে। শৈশবে পড়াশোনার ফাঁকে সেখানেই শেখেন আঁকাআঁকি।

আরও জানান, তার চিত্রকর্ম নিয়ে দেশে-বিদেশে অনেক প্রদর্শনী হয়েছে। অনেক পুরস্কারও পেয়েছেন। ২০১৯ সালে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে ১৭ দেশের অংশগ্রহণে চিত্রপ্রদর্শনী হয়। সেখানে তার আঁকা বেশ কিছু ছবি স্থান পায়। এ ছাড়া ধানমন্ডি আর্ট গ্যালারিতেও তার চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হয়। গত বছর ময়মনসিংহে বঙ্গবন্ধু আর্ট ক্যাম্পে অংশ নেন তিনি। এ ছাড়া নেপালের কাঠমান্ডু, মিয়ানমার ও ভারতে চিত্রপ্রদর্শনীতে অংশ নিয়ে পুরস্কার লাভ করেছেন।

তারিকুল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে দেখার সৌভাগ্য হয়নি। কিন্তু দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে তার অবদান ও আত্মত্যাগের কথা শুনে তাকে ভালোবেসে ফেলেছি।’ তিনি আরও জানান, খুব ইচ্ছা দেড়শ ফুট দীর্ঘ বঙ্গবন্ধুর লাইভ পোর্ট্রেট এঁকে সবাইকে অবাক করার। কিন্তু ইচ্ছা থাকলেও সেই আর্থিক সামর্থ্য নেই তার। কারও কোনো সহযোগিতা না পাওয়ায় সেটি সম্ভবও হয়নি।

শিল্পী তারিকুল ইসলামের শিল্পকর্ম দেখে বগুড়া জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ খান রনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবনের নানা সময়ের ঘটনাচিত্র ছোট ছোট কাগজে তুলির আঁচড় দিয়ে দুর্দান্তভাবে ফুটিয়ে তুলেছে ছেলেটি। এ শিল্পকর্ম নিঃসন্দেহে অনন্য ও বিরল। তার এ শিল্পকর্ম নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের আগ্রহ তৈরি করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2019-2023 usbangladesh24.com